Tuesday , February 7 2023
Breaking News
Home / Countrywide / ভালোবেসে বিয়ে করাটাই কাল হলো মেধাবী ছাত্রী দিপ্তীর, বিয়ের ৪ মাসেই দিতে হলো প্রাণ

ভালোবেসে বিয়ে করাটাই কাল হলো মেধাবী ছাত্রী দিপ্তীর, বিয়ের ৪ মাসেই দিতে হলো প্রাণ

দীর্ঘদিন প্রেমের পর পরিবারের সম্মতি ছাড়াই গত মাস চারেক আগে নিজেরদের মতো করে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন নয়ন (২৬) ও দিপ্তী মণ্ডল (১৮)। ভেবেছিলেন আসতে আসতে সব ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু না, সেই আসা আর পূরণ হলো না দিপ্তীর। এরই মধ্যে স্বামী, শাশু’ড়ি ও ননদের অ’মা’নবি’ক নি’র্যা’ত’নের ‘শি’কা’র ‘হয়ে পৃথিবী ছাড়তে হলো তাকে।

এমন দাবি নিহত দিপ্তীর পরিবার ও স্বজনদের।

রোববার (৪ ডিসেম্বর) সকালে পুলিশ দীপ্তি মন্ড’লে’র ‘লা’শ’ ময়না’তদ’ন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। দীপ্তি বাগেরহাট সদর উপজেলার হালিশহর গ্রামের তারক মন্ডলের মেয়ে এবং চিতলমারী সরকারি বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজের ছাত্রী। সে এ বছর এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিল।

এর আগে শনিবার (৩ ডিসেম্বর) রাতে চিতলমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ, হাসপাতাল, কলেজ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ৪ মাস আগে পারিবারিক সম্মতি ছাড়াই বিয়ে করেন তারা। এরপর থেকে শ্বশুর বাড়িতে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চলতে থাকে। এই অত্যাচার সইতে না পেরে ৩০ নভেম্বর আশারিয়া কলেজের গ্রন্থাগারিক সুচিত্রা রানী মল্লিকের বাড়িতে পালিয়ে যান। সেখান থেকে তিনি ১ ডিসেম্বর পৌরনীতি পরীক্ষা দেন।

শনিবার বিকেলে চিতলমারী মহিলা কলেজ রোডে সুচিত্রা রানীর ভাড়া বাসায় ‘ফ্যা’নে’র সঙ্গে’ নিজে” ফাঁ”স ‘দে’ন। এ সম’য়’ তাকে উদ্ধার করে চি’ত’লমারী স্বা’স্থ্য কম’প্লে’ক্সে ভর্তি করা হলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

দীপ্তি মন্ডলের মা কাঞ্চন মন্ডল ও দাদী পারুল বিশ্বাস জানান, শাশুড়ি, ননদ ও স্বা’মী দী’প্তি’কে নি’র্ম’ম’ভাবে ‘নি’র্যা’ত’ন করে। মা’ন’সিক ও শারীরিক নি”র্যা’তন স’ইতে না পেরে দীপ্তি ঘ’র থেকে বের হয়ে নিজে’কে উন্মুক্ত করে।

গ্রন্থাগারিক সুচিত্রা রানী মল্লিক বলেন, দীপ্তি আমার প্রতিবেশী এবং কলেজের মেধাবী ছাত্রী ছিল। শ্বশুরবাড়ির অ”ত্যা”’চার’ সই’তে না পেরে তিনি এই পথ বেছে নেন। এ ছাড়া বাবার কারণে তিনি সেখানে আশ্রয় পাননি।

এদিকে ঘটনার পর থেকে দীপ্তির স্বামী নয়ন ও তার পরিবারের সদস্যরা পলাত’ক এবং নয়নের মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে এ ঘটনার আলোকে চিতলমারী থানার এক উর্ধতন কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি সংবাদ মাধ্যমকে জানান, খবর পাওয়া মাত্রই দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে ওই গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

About Rasel Khalifa

Check Also

নারীকে রক্ষার পরিবর্তে নিজেই তুলে নিয়ে এমনটা করেছেন, শুনেই তাকে গ্রেপ্তারে সোর্স নিয়োগ করি: পুলিশ

সম্প্রতি আলোচিত এই ঘটনাটি ঘটেছে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নের কেশবপুর গ্রামে। যেখানে স্বামীকে বেঁ’ধে’ ‘রেখে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *