Tuesday , January 31 2023
Breaking News
Home / Countrywide / পুরোপুরি পাল্টে যাচ্ছে ১৭ গ্রামের চেহারা, চিনতে পারছে না স্থানীয়রা

পুরোপুরি পাল্টে যাচ্ছে ১৭ গ্রামের চেহারা, চিনতে পারছে না স্থানীয়রা

বিস্তীর্ণ জলাশয় থাকার জন্য কৃষকেরা আশানুরুপ ফসল ফলাতে অক্ষম হতো তাদের জমিতে এবং অনেকে জমি অনাবাদি হিসেবেই পরে থাকতো ১২ মাস। তাই এলাকায় বেকার মানুষের সংখ্যা ও দারিদ্র্যতার হার ক্রমেই বাড়তো। তাছাড়া এলকার মানুষ কাজের সন্ধানে দেশের বিভিন্ন স্থানে যেত। সেই সকল দুর্বিষহ অবস্থা এখন পুরোপুরি পাল্টে গেছে। বর্তমানে এই এলাকার সকল স্থানে জোর দিয়ে কাজ চলমান রয়েছে, দেশের এবং বিদেশের কর্মীরা পূর্ণ গতিতে কাজ করে চলেছেন।

এই ছবিটি নারায়ণগঞ্জের বাংলাদেশ স্পেশাল ইকোনমিক জোন (বিএসইজেড) প্রকল্প এলাকার আশেপাশের ১৭টি গ্রামের।
স্থানীয় লোকজন জানায়, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশের আড়াই হাজার সাতগ্রাম ইউনিয়নের বেশির ভাগ গ্রামই ছিল পিছিয়ে। পাঁচরূখী, ছনপাড়া, সিংহদী, পাঁচগাঁও, পাঁচবাড়িয়া প্রভৃতি এলাকা ছিল নিচু। সারা বছরই স্থানীয় কৃষকদের জমিতে পানি জমে থাকতো আর ফসল হতো না। বিএসইজেড প্রকল্প শুরু হওয়ার পর থেকে এলাকার চিত্র পাল্টাতে শুরু করেছে। সরকার এখানে প্রায় ১৮০০ বিঘা জমি অধিগ্রহণ করে। কৃষকদের পাওনা টাকা বুঝিয়ে দেওয়ার পর প্রকল্প এলাকার আশপাশের ১৭টি গ্রামের চেহারা পাল্টে গেছে। প্রকল্প এলাকায় অনেকে ঠিকাদার হিসেবে কাজ করছেন, বেকার যুবকরা শ্রমিক হিসেবে কাজ পেয়েছেন। দুই বছর ধরে মানুষের ঘর তৈরি হচ্ছে।

বিএসইজেডের প্রকল্প পরিচালক সালেহ আহমদ বলেন, প্রকল্পের ৮৫ শতাংশ অগ্রগতি হয়েছে। বিনিয়োগকারীদের হস্তান্তরের জন্য ১৬০ একর জমি প্রস্তুত করা হয়েছে। বাংলাদেশ ইকোনমিক জোন অথরিটি (বেজা) প্রকল্প এলাকার ২৪ শতাংশের মালিক, আর জাপানী সংস্থা সুমিটোমো এবং জেডএআইসি বাকী অংশের মালিক।

বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান শেখ ইউসুফ হারুন বলেন, এই প্রকল্পে ১৫০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করা হবে। যে ৪০টি কোম্পানি ইতিমধ্যেই বিনিয়োগে আগ্রহ দেখিয়েছে, তার মধ্যে ৩০টি জাপানের। এ প্রকল্পে বাংলাদেশ সরকার প্রায় দুই হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে জমি অধিগ্রহণ করেছে। ভূমি অবকাঠামো উন্নয়নে জাইকা আড়াই হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে। এখানে পরিবেশবান্ধব ব্যবস্থাপনায় ওষুধ, অটোমোবাইল, ইলেকট্রনিক সামগ্রী তৈরি করা হবে।

এরই মধ্যে তুরস্কভিত্তিক কোম্পানি সিঙ্গার, জার্মানির রুডলফ এই প্রকল্পে বিনিয়োগ শুরু করেছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। গত ৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে স্থাপিত জাপানিজ অর্থনৈতিক অঞ্চলের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার সরেজমিনে দেখা গেছে, জাপানের অর্থনৈতিক অঞ্চলে সীমানা প্রাচীর নির্মাণের কাজ চলছে।

পাঁচরুখী গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল খালেক বলেন, প্রকল্পটি শুরু হওয়ার পর এখানকার মানুষের জীবনযাত্রায় পরিবর্তন এসেছে। গ্রামীণ জনপদ এখন প্রায় শহরে পরিণত হয়েছে। স্থানীয়রা শ্রমিক কাজসহ নানা ধরনের ব্যবসা করছেন। আশপাশের বাজারে বিক্রি বেড়েছে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু বলেন, “এই সরকার দেশে এবং এই এলাকায় যে উন্নয়ন কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে সেটার অগ্রগতি অব্যাহত রয়েছে। আমার এই এলাকার মানুষেরা এক সময় ছিল বেকার, এখন তাদের কাজের ক্ষেত্র বেড়েছে, আয় বেড়েছে অনেকে। বেকারত্ব ঘুচিয়ে জীবন বদলেছে। দেশি-বিদেশি শ্রমিক ও কর্মকর্তা যারা নিয়োজিত রয়েছেন তাদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তা প্রদান করা হচ্ছে বেশ গুরুত্ব দিয়ে।

About bisso Jit

Check Also

বিরল এক কান্ড ঘটিয়ে এবার আলোচনায় গোলাম রাব্বানী, ভিডিও সাড়া ফেলল অনলাইনে (ভিডিওসহ)

বিষয়টি অনেকটা অবাক করা হলেও বাস্তবেই এবার এমনই একটি ঘটনা ঘটনা ঘটেছে নাটোরের বাগাতিপাড়ায়। কাঁচা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *