Tuesday , February 7 2023
Breaking News
Home / Countrywide / ৮ বিভাগে নতুন দল গঠন করে নয়া কৌশল নিচ্ছে আ.লীগ, জানা গেল কারন

৮ বিভাগে নতুন দল গঠন করে নয়া কৌশল নিচ্ছে আ.লীগ, জানা গেল কারন

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বর্তমান ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ তাদের দলকে সুসংগঠিত করার জন্য ও শক্তিশালী করার জন্য নানা ধরনের নতুন নতুন কৌশল নিচ্ছে। গত ২৪ ডিসেম্বর আ.লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দলকে আরও বেশি সুসংগঠিত করার নির্দেশ দিয়েছেন, দলের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি তৃণমূল পর্যায়ে নেতাকর্মীদের সক্রিয়ভাবে দলীয় কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার জন্য নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা দলকে শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, জনগণের আস্থা ও বিশ্বাসই আওয়ামী লীগের সবচেয়ে বড় শক্তি। তিনি দলের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, আপনারা দলকে শক্তিশালী করতে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেবেন। এটা আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ।

দশম বারের মতো আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর রোববার গণভবনে দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, জনগণের আস্থা ও বিশ্বাসই আওয়ামী লীগের সবচেয়ে বড় শক্তি। আমাদের আর অন্য কোনো শক্তি নেই। আমরা শুধু জনশক্তিতে বিশ্বাস করি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণকে সঠিক পথ দেখাতে পারলে দেশের উন্নয়ন কেউ ঠেকাতে পারবে না।

আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রতিটি জেলা উপজেলায় দলীয় কার্যালয় স্থাপনের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, যদি তারা অক্ষম হয় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও ইউনিটগুলোকে তাদের কার্যালয় স্থাপনে সহায়তা করবে।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় দলের কার্যালয় থাকা প্রয়োজন। তিনি বলেন, আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছি। অনলাইনের মাধ্যমে সারাদেশের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগের সুযোগ রয়েছে। তাহলে এ ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগ পিছিয়ে থাকবে কেন?

তিনি বলেন, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে যোগাযোগের সুবিধার্থে একটি প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে চাই। দলকে শক্তিশালী করতে নতুন সদস্য নিয়োগের ওপর জোর দেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, আট বিভাগে আটটি নতুন দল গঠন করব। তারা নতুন সদস্য নিয়োগের বিষয়টি দেখভাল করবে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগই একমাত্র দল যারা এদেশের মাটি ও মানুষ থেকে গড়ে উঠেছে। কিন্তু বিএনপি এসেছে সাম”রিক শাসকদের পকেট থেকে, যারা সংবিধান লঙ্ঘন করে অবৈধভাবে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করেছিল।

জনগণের প্রতি তাদের কোনো কোনো দায়বদ্ধতা নেই উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, যেহেতু জনগণের ভাগ্য নির্ধারণের দায়িত্ব আওয়ামী লীগের। তাই এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতা-কর্মীর দায়িত্ব রয়েছে।

প্রসংগত, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে শুধুমাত্র ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ নয়, অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোও নিজেদের দলকে সুসংগঠিত করার জন্য নানা ধরনের কৌশল নিচ্ছে। তবে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থেকে নিজেদের দলকে সাজানোর জন্য অধিকতর সুবিধা পাচ্ছে তৃণমূল পর্যায় থেকে। এদিকে বিএনপি বর্তমান ক্ষমতাসীন দলকে ক্ষমতা থেকে নামাতে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

About bisso Jit

Check Also

নাট-বল্টু কান্ড: এবার মাদ্রাসার ৩ শিক্ষার্থী জনসমক্ষে কাটা হলো চুল

পদ্মা সেতুর নাট বল্টু খোলা নিয়ে এক যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে এবং সেই মামলা এখনো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *