Tuesday , February 7 2023
Breaking News
Home / Entertainment / শেষ পর্যন্ত জানা গেলো রাজ-পরীর সংসার ভেঙে যাওয়ার নেপথ্যের কারণ

শেষ পর্যন্ত জানা গেলো রাজ-পরীর সংসার ভেঙে যাওয়ার নেপথ্যের কারণ

বাংলাদেশের টক অব দা টাউন এখন পরীমনি এবং শরিফুল রাজ। তাদের প্রেমের খবর যে ভাবে ছড়িয়েছে ঠিক সেই ভাবেই ছড়িয়েছে তাদের বিচ্ছেদের খবর। বর্তমানে অভিনেত্রী পরীমনি তার বিবাহিত জীবনে কঠিন সময় পার করছেন। নায়িকা বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছিলেন রাজ, যাকে তিনি ভালোবাসতেন, তাকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনেছিলেন। গত বছরের শেষ দিনে বিচ্ছেদের ইঙ্গিত দিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি স্ট্যাটাস দেন পরীমনি।

এরপর নতুন বছরের প্রথম দিনে রক্তমাখা বিছানার ছবি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করার কথা বলেন তিনি। পরে তিনি আরেকটি স্ট্যাটাসে রাজের বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ করেন।

যা নিয়ে দেশের শোবিজ অঙ্গনে তোলপাড় পড়ে যায়। তাদের দাম্পত্য কলহ দেশের আলোচনায় পরিণত হয়েছে। সংসার ভাঙার গুঞ্জন জোরালো হচ্ছে। একই দিন, অন্য একটি স্ট্যাটাসে স্বামী রাজকে স্পর্শ করার অভিযোগও করেন পরী।

তবে এ প্রসঙ্গে রাজ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি যেমন আছি তেমনই আছি। তবুও চুপ করে কিছু বলতে চাই না। এই অবস্থায় আমাকে এখন একা থাকতে হবে। এসব নিয়ে পরে কথা বলবো। কেউ ভুল বুঝলে বুঝবেন। তবে আমি পরিষ্কার বলি, আমি কোনো অন্যায় করিনি।

তবে তাদের বিচ্ছেদের বিষয় নিয়ে রাজ বলেন, ‘না, আর হবে না (জোড়া লাগবে না)।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় পরীমণির পোস্ট করা বিছানায় রক্তের ছবি ও স্ট্যাটাস প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার বেডরুমটা ব্যক্তিগত, খুব ব্যক্তিগত। জনসাধারণের জন্য নয়। কিন্তু সবাই আমার বেডরুম নিয়ে মজা করে।

এরপর মঙ্গলবার ভোর ৪টা ৪৮ মিনিটে রাজ তার ব্যক্তিগত ফেসবুক প্রোফাইলে লেখেন- ‘হ্যালো গডফাদারস অ্যান্ড গং। আমি আপনাকে বলছি জানতে চাই. আমি ঢাকায় থাকি, আমি আনন্দ করতে চাই।’

এমন পোস্টে রাজ যে হুমকি পেয়েছেন বা পাচ্ছেন তা ভক্তরা বুঝতে পেরেছেন। তবে তাদের বিরুদ্ধে সরাসরি হুমকিও দেখতে চেয়েছিলেন রাজ।

এদিকে, তারা দুজনেই তাদের ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের সাথে কথা বলেছেন, যারা কয়েক মাস ধরে তাদের সম্পর্কে গসিপ করছেন বলে জানা গেছে। পৃথিবীতে আসার পর বেশ কয়েক মাস ভালো ছিল শিশুটি। এর পর কিছুটা বকাবকি হয়। এরপর সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে।

এ পর্যায়ে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ কমে যাওয়ায় দুজনের মধ্যে দূরত্ব বেড়ে যায়। দুজনের মধ্যে অবিশ্বাসও তৈরি হয়। তারা একে অপরকে সন্দেহ করতে থাকে। তারপরও সম্পর্কটা চালিয়ে যাওয়ার জন্য বারবার চেষ্টা করছেন। কিন্তু যখন তা একেবারেই সম্ভব হচ্ছিল না, তখন তারা সিদ্ধান্ত নেয় যে এই ধরনের সম্পর্ক চালিয়ে যাওয়ার চেয়ে আলাদা থাকাই ভালো।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ১৭ই অক্টোবর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন পরীমনি এবং শরিফুল রাজ। আর সেই থেকেই তাদের নিয়ে শুরু দেশে আলোচনার। বিয়ের পর পরই তারা ঘোষণা দেন সন্তান নেয়ার। এরপর তাদের সন্তান দুনিয়াতে আসলেও শেষ টা হচ্ছে না ভালো।

About Rasel Khalifa

Check Also

শাকিব খানের সাথে সম্পর্ক নিয়ে অপু বিশ্বাসের কথায় নতুন ইঙ্গিত

দীর্ঘদিন হয়ে গেল চিত্রনায়ক শাকিব খান এবং অপু বিশ্বাসের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটেছে। তবে তারা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *