Monday , September 25 2023
Breaking News
Home / Countrywide / সামনেই নির্বাচন, সরকারের কাছে পুলিশের যত দাবি-আবদার

সামনেই নির্বাচন, সরকারের কাছে পুলিশের যত দাবি-আবদার

বাংলাদেশের আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর মধ্যে সব থেকে বেশি প্রতিষ্ঠানটি সক্রিয় থাকে সেটি হলো বাংলাদেশ পুলিশ।সারা বছর তাদেরকে থাকতে হয় দেশের নিরাপত্তার দায়িত্বে।এর এই কারণেই পুলিশের গুরুত্ব দেশে অনেক বেশি। সম্প্রতি পুলিশ সপ্তাহ-২০২৩-এর পঞ্চম দিনে রাজধানীর রাজারবাগে বাংলাদেশ পুলিশ অডিটোরিয়ামে ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। এ সময় পুলিশ কর্মকর্তারা তাদের একাধিক দাবি তুলে ধরেন। এর মধ্যে ডিএমপি কমিশনার ও র‌্যাবের মহাপরিচালকসহ পুলিশ বাহিনীতে সচিব পদমর্যাদার ১০টি গ্রেড-১ পদ দাবি করেন তারা।

এছাড়া তারা আইজিপির পদমর্যাদার ব্যাচকে ফোর স্টার করা, পুলিশ হাসপাতালকে মেডিকেল কলেজ করা, পুলিশের জন্য বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়, ফৌজদারি বিচারসহ বিভিন্ন দাবি তুলে ধরেন।

বৈঠক সূত্র জানায়, রাত ৮টার দিকে রাজারবাগে বাংলাদেশ পুলিশ অডিটোরিয়ামে মতবিনিময় সভা শুরু হয়। বেলা সোয়া ১১টা পর্যন্ত বৈঠক চলে। বৈঠকে দেশের সব মেট্রোপলিটন এলাকার পুলিশ কমিশনার ও ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল (ডিআইজি), সারাদেশের পুলিশ সুপার, বিভিন্ন পুলিশ ইউনিটের প্রধান, পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক এবং অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র জানায়, পুলিশের ১১ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে পুলিশের বিভিন্ন দাবি তুলে ধরেন। একজন কর্মকর্তা পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) পদকে চার তারকা জেনারেলের (সেনাপ্রধান) পদের সাথে সমান করার প্রস্তাব করেছেন। আরেক কর্মকর্তা বলেন, আইজিপি সিনিয়র সচিব পদমর্যাদার, তাকে আর্থিক বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সাচিবিক ক্ষমতা দেওয়া উচিত। একজন কর্মকর্তা পুলিশ বিভাগকে পুলিশ সদর দপ্তর করার দাবি জানান।

পুলিশ কর্মকর্তাদের দাবি ও সমস্যার কথা শোনেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বৈঠকে উপস্থিত সিনিয়র সচিব আমিনুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্ট সচিবকে কয়েকটি দাবির বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন। কিছু সমস্যা সমাধানের আশ্বাসও দেন তিনি। এর আগে পুলিশের কাজের প্রশংসা করেন আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন ও স্বরাষ্ট্র সচিব আমিনুল ইসলাম।

বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, এই রাজারবাগ মাঠে বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, আপনারা জনগণের পুলিশ হবেন। আজ আপনারা বঙ্গবন্ধুর সেই স্বপ্নকে সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করেছেন। পুলিশ আজ জনগণের সবচেয়ে বড় আস্থা ও আস্থার স্থানে পরিণত হয়েছে।

পুলিশ এবং দেশের অবস্থা নিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। আপনি সেখান থেকে কাজ করছেন। যেকোনো দুর্যোগে পুলিশ জনগণের বন্ধু হিসেবে কাজ করে। করোনাভাইরাস মহামারীতে জনগণের পাশে পুলিশ কাজ করেছে। এমনকি সংক্রমিত হয়ে জীবন উৎসর্গ করেছে। পুলিশ কখনোই তাদের দায়িত্ব থেকে পিছপা হয়নি। আগের পুলিশ আর এই পুলিশ এক নয়। খেলাধুলাসহ সবকিছুতেই পুলিশ এগিয়ে যাচ্ছে।

About Rasel Khalifa

Check Also

উড়ছে শকুন, যে কোনো সময় মানচিত্রে থাবা দেবে: শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান মাঝে মাঝে আলোচনায় উঠে আসেন। তিনি রাজনীতিতে দীর্ঘদিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *