Thursday , March 30 2023
Breaking News
Home / Countrywide / হজের ঠিক আগেই দেশে হটাৎ হজ নিবন্ধন বাতিলের হিড়িক, প্রকাশ্যে কারণ

হজের ঠিক আগেই দেশে হটাৎ হজ নিবন্ধন বাতিলের হিড়িক, প্রকাশ্যে কারণ

প্রতি বছর বাংলাদশে হজ মৌসুমে হজ পালন করতে যায় লাখ বাংলাদেশী। আর প্রতিবছরের ন্যায় এবারও বাংলাদেশে শুরু হয়েছে হজ যাত্রী নিবন্ধন। কিন্তু নিবন্ধনের আগেই দেখা গিয়েছে নতুন জটিলতা।হঠাৎ করে লাখ লাখ টাকা খরচ বেড়ে যাওয়ায় হজে নিবন্ধিত কয়েকজন নিবন্ধন বাতিল করেছেন। এছাড়াও নিবন্ধনের জন্য জমা করা টাকা উত্তোলন করে নিচ্ছেন।

এ অবস্থায় বাংলাদেশের হজ কোটা পূরণ না হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। বিগত বছরগুলোতে সরকার ঘোষিত প্যাকেজে মানুষ হজে যাওয়ার সুযোগ পেতে তদবির করলেও খরচ বাড়ার পর এবার হজ কোটা পূরণ নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এদিকে, মহামারীর পর এই প্রথম বাংলাদেশ হজযাত্রীদের পূর্ণ কোটা পাঠানোর সুযোগ পেল। কিন্তু গত মাসে হজ প্যাকেজ ঘোষণার পর অনেকেই আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। কারণ প্যাকেজ অনুযায়ী কোরবানিসহ হজের খরচ সাত লাখ টাকা ছাড়িয়ে যাবে। আর এত টাকা খরচ করে হজে যাওয়া অনেকের পক্ষে সম্ভব নয়। ফলে এ বছর ১ লাখ ২৭ হাজার উপস্থিতি কোটা পূরণ হবে কি না, তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। হাব ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, অনেকে নিবন্ধন করেও হজ প্যাকেজ বাতিল করছেন। বরং ১,২৭,০০০ এবং ১৯৭ জনের কোটার বিপরীতে শুধুমাত্র ১৭,০০০ হজযাত্রী নিবন্ধন করেছেন, নন-বালতি এবং অ-বাল্টি উভয়ই। যেখানে আগে হজ নিবন্ধনের জন্য তদবির ছিল, এখন টাকা তোলার তাগিদ রয়েছে। প্রথম দফার হজ নিবন্ধনের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি শেষ হলেও জনগণের অনীহার কারণে নিবন্ধনের সময়সীমা বাড়ানো হতে পারে। শুধুমাত্র তীর্থযাত্রীদের সংখ্যা বাড়াতে, সময়সীমা ১০ মার্চ পর্যন্ত বাড়ানো যেতে পারে।

সূত্র জানায়, কোরবানির খরচ বাদ দিয়ে এ বছর হজ প্যাকেজে সরকারিভাবে ৬ লাখ ৮৩ হাজার ১৮ টাকা এবং বেসরকারি খাতে ৬ লাখ ৭২ হাজার ৬১৮ টাকা ধরা হয়েছে। কোরবানিসহ খরচ হবে সাত লাখ টাকা। যা নিম্ন মধ্যবিত্তের নাগালের বাইরে। বিমান ভাড়া হজের খরচ বাড়ার অন্যতম কারণ। পৃথিবীর কোনো দেশ একবারে এতটা বিমান ভাড়া বাড়ায়নি। গত বছর ২০১৫ হজে সর্বনিম্ন খরচ ছিল ২ লাখ ৯৬ হাজার ২০৬ টাকা। ২০১৬ সালে ৩ লাখ ৪ হাজার টাকা, ২০১৭ সালে ১৯ লাখ টাকা, ২০১৮ সালে ৩ লাখ ৩১ হাজার টাকা, ২০১৯ সালে ৩ লাখ ৪৫ হাজার টাকা। করোনা মহামারির কারণে ২০২০ ও ২০২১ সালে বাংলাদেশ থেকে হজ সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে যায়।

২০২২ সালে হজ প্যাকেজের মূল্য ছিল ৫ লাখ ২৭ হাজার ৩৪০ টাকা এবং ২০২৩ সালে তা নির্ধারণ করা হয় ৬ লাখ ৮৩ হাজার ১৫ টাকা। ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২৩ সালে হজের খরচ বেড়েছে ৩ লাখ ৩৮ হাজার ১৫ টাকা। তবে এ বছর হজের আনুষঙ্গিক খরচ কমিয়েছে সৌদি সরকার। কিন্তু ২০১৭ থেকে ২০২২ পর্যন্ত গত ৬ বছরে হজ যাত্রীদের বিমান ভাড়া ক্রমাগত বেড়েছে।

তবে, ২০২৩ সালের জন্য নির্ধারিত বিমান ভাড়া আগের তুলনায় প্রায় ৩০ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। মূলত বিমান ভাড়া বৃদ্ধির কারণে হজ প্যাকেজের দাম অস্বাভাবিক বেড়েছে। সূত্র আরও জানায়, দ্বিতীয় দফা হজ নিবন্ধনের সময়সীমা বাড়ানো পর্যন্ত কয়েকদিনের মধ্যে প্রতিক্রিয়া জানা যাবে। এরপর হজ অফিসের দল সৌদি আরবে গিয়ে আনুমানিক হজযাত্রীর সংখ্যা অনুযায়ী বাড়ি ভাড়া নেবে। তবে বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সময় বাড়ানো হলেও নিবন্ধনের সংখ্যা ৫০ হাজার হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কারণ বর্তমানে প্রাক-নিবন্ধন করেছেন কিন্তু হজে যাচ্ছেন না এমন মানুষের সংখ্যা বেশি। ফলে হাজিদের নিয়ে প্রতিবছরের ব্যস্ততা এবার দেখা যাচ্ছে না।

এদিকে হজের অস্বাভাবিক ব্যয় কমাতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশের (এটাবি) সভাপতি এসএন মনজুর মোরশেদ। তিনি জানান, এ বছর হজযাত্রায় প্রত্যেক হজযাত্রীর খরচ হবে ৬ লাখ ৮৩ হাজার ১৮ টাকা। গত বছরের তুলনায় এবার খরচ বেড়েছে ১ লাখ ৬১ হাজার ৮৬৮ টাকা।

এছাড়া কোরবানি ছাড়া বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের জন্য হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) প্যাকেজ মূল্য নির্ধারণ করেছে ৬ লাখ ৭২ হাজার ৬১৮ টাকা।

এবারের হজের খরচ নজিরবিহীন। হজ ব্যয় ৫ লাখের নিচে রাখতে পারলে কোটা পূরণ হতো। এয়ারলাইন্স সহ সবাই উপকৃত হবে। এখন ৫০ হাজারও না হলে দিন শেষে লোকসান বেশি হবে এয়ারলাইন্সগুলোর। পরিস্থিতি এখন সেদিকেই যাচ্ছে।

অন্যদিকে হাবের সভাপতি শাহাদাত হোসেন তসলিম বলেন, হাবের সঙ্গে কোনো পরামর্শ ছাড়াই এয়ারলাইন্সগুলো তাদের ভাড়া বাড়িয়েছে। ডলার ও রিয়ালের দাম বাড়ায় হজের খরচ প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। কিন্তু সে হারে তেলের দাম বাড়েনি।

প্রসঙ্গত, এ দিকে হটাৎ করে হজ নিবন্ধন বাতিল হয়ে যাওয়া নিয়ে তৈরী হয়েছে নানা ধরনের সংশয় আর আলোচনা। বিশেষ যারা এই বাড়তি অর্থ বহন করতে পারছেন না তাদের মধ্যে রয়ে গেছে হজে যেতে না পাড়ার আক্ষেপ। আর এই কারণে অনেকেই বার বার এ বিষয়ে সিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ।

About Rasel Khalifa

Check Also

আরাভ ডাক দিলেই দুবাই পাড়ি জমাতেন দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী,করতেন অনৈতিক কাজ

আরাভ খানকে নিয়ে আলোচনা সমালোচনা যেন থামছেই না। একের পর এক সব নতুন তথ্য সামনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *